1. riyaakhter747@gmail.com : Riya Akther : Riya Akther
জনপ্রিয় ৫০টি মা নিয়ে উক্তি ও ক্যাপশন , স্ট্যাটাস
মা নিয়ে উক্তি ক্যাপশন স্ট্যাটাস
জনপ্রিয় ৫০টি মা নিয়ে উক্তি ও ক্যাপশন , স্ট্যাটাস

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সবাই ভাল আছেন আমি আপনাদের মাঝে শেয়ার করব জনপ্রিয় ৫০টি মা নিয়ে উক্তি ও ক্যাপশন , স্ট্যাটাস। এই পৃথিবীতে কেউ যদি আপনাকে নিঃস্বার্থভাবে ভালবেসে থাকে তবে সে হলো একমাত্র মা। আর আজ আমরা আপনার মাঝে মায়ের ভালোবাসা স্মৃতি নিয়ে কয়েকটি স্ট্যাটাস এবং ঐতিহাসিকগণ ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের উক্তি শেয়ার করুন। 

জনপ্রিয় ৫০টি মা নিয়ে উক্তি ও ক্যাপশন , স্ট্যাটাস

এই পৃথিবীতে কেউ যদি আপনাকে নিঃস্বার্থভাবে ভালবেসে থাকে এবং আপনার জন্য সবথেকে বেশি যে কষ্ট করেছে সেই ব্যক্তির নাম হলো মা। প্রায় দশ মাস দশ দিন আমাদেরকে তারা নিজের গর্ভে রেখে  আমাদেরকে জন্ম দেয়। শুধু তাই নয়, আপনাকে জন্ম দিতে গিয়ে তার মৃত্যু হতে পারে, এমনটা জানার পরও সে আপনাকে গর্ভে ধারণ করে এবং হাজারো কষ্টের পরও মৃত্যু যন্ত্রণা সহ্য করে আপনাকে পৃথিবীতে আলোর মুখ দেখায়।

এরপর আপনার মা আপনাকে বড় করার জন্য যেকোনো কষ্ট সহ্য করে থাকে এবং আপনাকে লালন পালন করে বড় করার পেছনে সবথেকে বড় ভূমিকা হল আপনার মার। তাই এই পৃথিবীতে প্রতিটি সন্তানের জন্য তার মা হলো পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সমর্থক এবং সব থেকে কাছের বন্ধু।

এই পৃথিবীতে আপনার সবচেয়ে কাছের মানুষ এবং পুরো দুনিয়ার ভিতরে আপনি সবথেকে তাকে বিশ্বাস করতে পারেন নিঃসন্দেহে। সবাই যখন আপনাকে ছেড়ে যায়। তখন শুধুমাত্র আপনার মায়ের আপনার পাশে থাকতে হয়। তাই আমরা এই মায়ের ভালবাসা নিয়ে এসো facebook উক্তি স্ট্যাটাস এবং ক্যাপশন আজ আপনাদের মাঝে শেয়ার করব। তাই কিন্তু একটু বড় হবে কষ্ট করে পুরো আর্টিকেলটি পড়ুন।


মা নিয়ে কিছু কথা

নিচে আমার বর্তমানে সব থেকে জনপ্রিয় কয়েকটি মা নিয়ে কথা শেয়ার করেছে। আপনারা চাইলে মা দিবসে অথবা অন্য যে কোন সময় মায়ের ভালোবাসা প্রকাশ করার জন্য এসব কথা ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য আপনাদের প্রথমে এগুলো কপি করে নিতে হবে এবং এরপর ফেসবুকে স্ট্যাটাস অথবা ক্যাপশন হিসেবে ব্যবহার করতে হবে।

  1. মা তোমাকে প্রচন্ড মিস করি।
  2. না আমি তোমার ভালবাসা এবং তোমার তোমার সমর্থন ছাড়া বাঁচতে পারব না।
  3. আমি তোমাকে আর কখনও দেখতে পাব না, এটা ভাবতেই আমার খুব কষ্ট হচ্ছে, মা! তুমাকে ছাড়া একা এই স্বার্থপর পৃথিবীতে কিভাবে বাঁচবো, বলো মা?
  4. মাগো তুমি আমার সবথেকে কাছের বন্ধু ও প্রিয় মানুষ  ছিলে।
  5. মা, আমি তোমাকে খুব ভালোবাসি।

মাকে নিয়ে ক্যাপশন

মাকে নিয়ে হাজার হাজার ক্যাপশন আপনি বানাতে পারবেন এবং আমরা চাইলেও হাজার হাজার ক্যাপশন আপনাকে শেয়ার করতে পারব কেননা আমরা সবাই মাকে ভালোবাসি এবং তার জন্য এসব করতে পারি। তাই আজ আমরা না যে আমাদের এই ওয়েবসাইট থেকে বর্তমানে সব থেকে জনপ্রিয় এবং সেরা মাকে নিয়ে শেয়ার করা হবে। আপনাদের মধ্যে যারা মাকে ভালবাসেন এবং তাকে নিয়ে ক্যাপশন করতে চান। তারা চাইলে নিচে থাকা ক্যাপশন গুলো দেখে নিতে পারেন।

  1. মা হল দুনিয়ার জান্নাত। যার কাছে মা আছে কার কাছে দুনিয়ার সবকিছু আছে। আর যার কাছে মা নেই তার কাছে সবকিছু থাকতেও কিছুই নেই।
  2. আমি হয়তো বোকা হতে পারি, গায়ের রং আমার কালো হতে পারে, ছাত্র হিসেবে আমি ক্লাসের সবথেকে বাজে ছাত্র হতে পারি, কিন্তু আমার মায়ের কাছে আমি শ্রেষ্ঠ সন্তান।
  3. ভালোবাসো তাকে যার কারণে পৃথিবী দেখেছ, ভালোবাসা তাকে যে তোমাকে ১০ মাস ১০ দিন গর্ভের ধারণ করেছে, ভালোবাসা তাকে যার পায়ের নিচে তোমার বেহস্ত আছে তিনি হচ্ছেন আমার মা।
  4. পৃথিবীটা অনেক কঠিন সবাই সবাইকে ছেড়ে যায়, সবাই সবাইকে ভুলে যায় শুধুমাত্র একজন ব্যক্তি ছেড়ে যায় না এবং ভুলে যায় না, সে সারা জীবন পাশে থেকে সে হচ্ছে আমার প্রিয় মা।
  5. আমাদের ভবিষ্যতের শিক্ষা কেমন হবে তা নির্ভর করে মায়ের শিক্ষার উপর, মায়ের শিক্ষা জ্ঞানী ভবিষ্যৎ আমাদের শিক্ষিত মানুষ হতে সাহায্য করে।

কয়েকটি জনপ্রিয় মাকে নিয়ে স্ট্যাটাস

মাকে ভালোবাসেন না এমন ব্যক্তি এই দুনিয়াতে খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। কেননা এই পৃথিবীতে একমাত্র আপনার মা আপনাকে নিঃস্বার্থভাবে ভালবেসে গিয়েছে এবং আপনার জন্য কষ্ট করেছে। তাই আমরা সকলে আমাদের মাকে ভালোবাসি। আর সেই ভালোবাসা প্রকাশ করার জন্য বিভিন্ন সময় মাকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে বা ফেসবুকে নানা রকম স্ট্যাটাস দিয়ে থাকি। তাই এসব বন্ধুরা আমাকে ভালবাসেন এবং সোশ্যাল মিডিয়া মাকে নিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস শেয়ার করার জন্য বিভিন্ন জায়গায় ফেসবুক স্ট্যাটাস করছিলেন চিন্তা করার কোন কারণ নেই। আজ আমরা আপনাদের মাঝে শেয়ার করব কয়েকটি জনপ্রিয় মাকে নিয়ে স্ট্যাটাস। তাহলে চলুন দেরি না করে শুরু করা যাক।

  1. মা হলো এই দুনিয়াতে থাকা একমাত্র ব্যাংকে যেখানে আপনি দুঃখ কষ্ট সবকিছু জমা রাখতে পারবেন এবং বিনিময় বিনা সুদে পেয়ে যাবেন অকৃত্রিম ভালবাসা আর স্নেহ।
  2. পৃথিবীতে তোমার হাজার হাজার বন্ধুবান্ধব আত্মীয়-স্বজন ও শুভাকাঙ্খী থাকবে কিন্তু সর্বশেষ তুমি একজন মানুষকেই খুঁজে পাবে যাকে তুমি শত আঘাত দেওয়ার পর সে শুধুমাত্র তোমার ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাববেন তিনি হলো মা।
  3. পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সুখ কি জানো? মা-বাবার আদর! সবচেয়ে বড় কষ্ট কি, জানো? বাবা মায়ের চোখের জল! সবচেয়ে বড় অমূল্য রতন কি জানো; বাবা মায়ের ভালোবাসা।
  4. আপনি দুনিয়ার যে কোন স্থানে যান না কেন , মায়ের কোলে শুয়ে আপনি যে শান্তি পান তা অন্য কোথাও কখনোই পাবেন না।
  5. এই দুনিয়ার সবকিছুই বদলে যায় কিন্তু একমাত্র মায়ের ভালোবাসা কখনোই বদলায় না।
  6. মা কখনো হয় না পর, যতই আসুক তুফান আর ঝড়! অন্যের ভালোবাসা হতে পারে ছলনা, কিন্তু মায়ের ভালোবাসায় পৃথিবীর কোন কিছুর সাথে হয়না তুলনা।
  7. সন্তানরা হলো ধারালো ছুড়ির মত। না চাইতেওসন্তানরা নানা রকম ভাবে তার মাকে কষ্ট দেয়। আর মায়েরা তাদের শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত সন্তানদের সাথে লেগে থাকে। 
  8. যেকোনো পরিস্থিতিতে অথবা যে কোন বিষয় প্রতিটি মায়েদেরকে দুইবার ভাবতে হয়: একবার তার সন্তানের জন্য, আরেকবার তার নিজের জন্য। 

ঐতিহাসিকগণ ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের মাকে নিয়ে উক্তি

বন্ধুরা উপরে আমরা আপনাদের মাঝে ফেসবুকে মাকে নিয়ে ভালোবাসার স্ট্যাটাস এবং ফেসবুকে মাকে নিয়ে ভালোবাসার ক্যাপশন সহ মাকে নিয়ে জনপ্রিয় কয়েকটি কথা শেয়ার করেছি। শুধু আমরা কেন পিছে পিছে অনেক সময় অনেক জ্ঞানী ব্যক্তিরা মাকে নিয়ে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রকম উক্তি দিয়ে গেছেন। আজ আমরা আপনাদের মাঝে সেসব উক্তি তুলে ধরবো। আশা করি আপনাদের জীবনে এগুলো কাজে লাগবে।

  1. আমার মা মনে করে আমিই সেরা, আর মা মনে করেন বলেই আমি সেরা হয়ে উঠেছি – দিয়াগো ম্যারাডোনা
  2. আমার দেখা সবচেয়ে সুন্দর মহিলা হলেন আমার মা মায়ের কাছে আমি চিরঋণী আমার জীবনের সর্বোচ্চ অর্জন তার কাছ থেকেই পাওয়া – জর্জ ওয়াশিংটন
  3. তিন রকম দোয়া নিঃসন্দেহে কবুল হয় মজলুমের দোয়া মুসাফিকের দোয়া আর সন্তানের জন্য পিতা-মাতার দোয়া – মহানবী হযরত মোহাম্মদ সাঃ
  4. তুমি আমাকে শিক্ষিত মা দাও।  আমি তোমাকে একটি শিক্ষিত জাতি দেব  – নেপালিয়ান
  5. আমি এখন পর্যন্ত যা আছি এবং ভবিষ্যতে যা হওয়ার আশা করি তার পিছনে সব থেকে বড় অবদান আমার মার।

মাকে নিয়ে কবিতা

শুধু আমরাই না বিভিন্ন সময় বিভিন্ন কবিগন মাকে নিয়ে কবিতা আবৃত্তি করেছে। এখানে যারা সন্তানের জন্য মায়ের ত্যাগ এবং ভালোবাসা ফুটিয়ে তুলেছে। একটা মানুষের পেছনে তার মায়ের ভূমিকা কতখানি এবং তার মা তার জন্য কতখানি ত্যাগ স্বীকার করেছে এসব বিষয়  কবিগন তারা তাদের কবিতায় তুলে ধরেছেন। অথচ এই সন্তানের একটা সময় বড় হয়ে তার মাকে বৃদ্ধাশ্রমে রেখে আসে এবং কোন খোঁজ খবর নেয় না। আবার অনেক সময় দেখা যায় এই সন্তান বড় হয়ে তার মায়ের কথা ভুলে গিয়ে মাকে নানা কারণ কষ্ট দেয়। আজ আমরা আপনাদের মাঝে এমন কিছু মাকে নিয়ে কবিতা শেয়ার করব।

১।আমি ভীষণ ভালবাসতাম আমার মা-কে

-কখনও মুখ ফুটে বলি নি।

টিফিনের পয়সা বাঁচিয়ে

কখনও কখনও কিনে আনতাম কমলালেবু

-শুয়ে শুয়ে মা-র চোখ জলে ভ’রে উঠত

আমার ভালাবাসার কথা

মা-কে কখনও আমি মুখ ফুটে বলতে পারি নি।

হে দেশ, হে আমার জননী-

কেমন ক’রে তোমাকে আমি বলি!

 

২।মা কথাটি চোট্ট অতি

কিন্তু জেনো ভাই,

ইহার চেয়ে নাম যে মধুর

তিন ভুবনে নাই।

সত্য ন্যায়ের ধর্ম থাকুক

মাথার ‘পরে আজি,

অন্তরে মা থাকুন মম

ঝরুক স্নেহরাজি।

 

৩। মায়া ভরা হৃদয়টি যার

সে আমার মা।

কত স্নেহ করতো আমায়

মনে পড়ে তা।

মনে কোন কষ্ট থাকলেও

বুঝতে দিত না।

হাসি ভরা মুখটি তার

দেখলে জুড়াত গা।

হাত এগিয়ে বলত আমায়

আয়রে কোলে খোকা।

 

মা’র দুঃখগুলোর ওপর গোলাপ-জল ছিটিয়ে দেওয়ার ইচ্ছে ছিল,

যেন দুঃখগুলো সুগন্ধ পেতে পেতে ঘুমিয়ে পড়ে কোথাও

ঘুমটি ঘরের বারান্দায়, কুয়োর পাড়ে কিম্বা কড়ইতলায়।

সন্ধেবেলায় আলতো করে তুলে বাড়ির ছাদে রেখে এলে

দুঃখগুলো দুঃখ ভুলে চাঁদের সঙ্গে খেলত হয়তো বুড়িছোঁয়া খেলা।

 

৬। মা’কে দুঃখের হাতে সঁপে বাড়ির মানুষগুলো অসম্ভব স্বস্তি পেত।

দুঃখগুলোকে পিঁড়ি দিত বসতে,

লেবুর শরবত দিত, বাটায় পান দিত,

দুঃখগুলোর আঙুলের ডগায় চুন লেগে থাকত…

ওভাবেই পাতা বিছানায় দুঃখগুলো দুপুরের দিকে গড়িয়ে নিয়ে

বিকেলেই আবার আড়মোড়া ভেঙে অজুর পানি চাইত,

জায়নামাজও বিছিয়ে দেওয়া হত ঘরের মধ্যিখানে।

দুঃখগুলো মা’র কাছ থেকে একসুতো সরেনি কোনওদিন।

আশা করি আর্টিকেলটা আপনাদের ভালো লেগেছে। এই ধরণের আরো নতুন নতুন আর্টিকেল পেতে এবং সবার আগে সকল তথ্য জানতে আমাদের ওয়েবসাইটটি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন। আর আপনি যদি আমাকে ওয়েবসাইট ইতিমধ্যে সাবস্ক্রাইব করে থাকেন তবে আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

আমার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করব
About The Author
Riya Akther
আমার নাম রিয়া আক্তার। আমি একজন স্টুডেন্ট। মেয়ে পটানোর থেরাপি সম্পন্ন ব্যতিক্রমধর্মী একটি ওয়েবসাইট। আমি মূলত মেয়ে পটানোর থেরাপির ওয়েবসাইটের সকল আর্টিকেল লিখেছি। আমি আমার আর্টিকেলে আপনাদের মাঝে যেসব আইডিয়া শেয়ার করেছি এগুলো মূলত আমার বন্ধু বান্ধব ও বান্ধবীদের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে নিয়েছি। আমার এই ওয়েবসাইটে কাজ করার উদ্দেশ্য হচ্ছে উদ্দেশ্য হচ্ছে যাতে করে সবাই তার ভালোবাসার মানুষের কাছে তার মনের কথা খুব সহজে জানাতে পারে এবং আমার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আমি যাতে আপনাদের ভালোবাসার মানুষটিকে পেতে আপনাদেরকে সকল ধরনের সাহায্য করতে পারি।