1. riyaakhter747@gmail.com : রিয়া আক্তার : রিয়া আক্তার
কিভাবে বুঝবো আপনার বান্ধবী আপনাকে ভালবাসে কিনা
বান্ধবী আপনাকে ভালবাসে
কিভাবে বুঝবো আপনার বান্ধবী আপনাকে ভালবাসে কিনা

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজ আমি আপনাদের মাঝে শেয়ার করব কিভাবে বুঝবো আপনার বান্ধবী আপনাকে ভালবাসে কিনা। এর আগে আমরা আপনাদের মাঝে শেয়ার করেছি কিভাবে আপনি আপনার বান্ধবী পটাতে পারবেন। কিন্তু আজ আমরা আপনাদের সাথে আলোচনা করব কিভাবে আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনার বান্ধবীর সত্যি সত্যি আপনাকে ভালোবাসে। আমাদের মধ্যে অনেকেই সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকেন।

আমাদের মতো ছেলে এই সমস্যা সম্মুখীন হয় যে, আপনি হয়তো কোন বান্ধবীকে খুব পছন্দ করেন বা ভালবাসেন। কিন্তু আপনি বুঝে উঠতে পারতেছেন না যে সে কি আপনাকে ভালোবাসে অথবা পছন্দ করে। অধিকাংশ সময় ব্যাপারটি নিয়ে দ্বিধায় পড়ে যান। মেয়েটির কথাবার্তা আচার আচরণ দেখে আপনার মনে হয় মেয়েটি হয়তো আপনাকে পছন্দ করে। কিন্তু যখনই আপনি মেয়েটিকে প্রপোজ করবেন। তখনই ভয় পান এটা ভেবে যে আপনার আইডিয়া টা যদি ভুল হয়ে থাকে তবে আপনি মেয়েটিকে প্রপোজ করতে গিয়ে উল্টো আরো অপমাননিত হবেন।

আপনাদের সুবিধার্থে আমরা নিজে একটি ভিডিও অ্যাড করে দিয়েছি। সেখানে কিভাবে বুঝবো আপনার বান্ধবী আপনাকে ভালবাসে কিনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে। আপনি চাইলে পুরো ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন। আশা করি একটি পূর্ণাঙ্গ ধারণা পেয়ে যাবেন। এছাড়াও নিচে এ বিষয়ে ধাপে ধাপে বিস্তারিত বর্ণনা করা হয়েছে। আপনি চাইলে পুরো আর্টিকেল পড়ে নিতে পারেন। 

তবে মেয়েটি যদি আপনার বান্ধবী হয়ে থাকে সে ক্ষেত্রে আপনাকে আরো কয়েকটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে এবং নিচে থাকা আরো কয়েকটি কৌশল অবলম্বন করতে হবে তাহলে আপনি খুব সহজে বুঝতে পারবেন আপনার বান্ধবী আপনাকে সত্যি ভালবাসে কিনা?

কিভাবে বুঝবো আপনার বান্ধবী আপনাকে ভালবাসে কিনা

অনেক সময় আবার এই ভয় পেয়ে ফিরে আসেন যে যদি মেয়েটিকে আপনি প্রপোজ করেন তাহলে হয়তো আপনাদের মাঝে যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক রয়েছে সেটিও নষ্ট হয়ে যেতে পারে। ইস মেয়েটি আমাকে সত্যি ভালবাসে কিনা এটি কনফার্ম করার যদি কোন উপায় পেতাম। তাহলে না কত ভালো হতো। আজ আমি আপনাদের মাঝে এই কনফিউশনটি গুলো দূর করার জন্য এই আর্টিকেলটি শেয়ার করেছি।

এ ধরনের আরো নতুন নতুন মেয়ে পটানো সংক্রান্ত তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন এবং আমাদের ওয়েবসাইট সম্পর্কে যদি মতামত থেকে থাকে তবে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে জানিয়ে দেবেন। আপনি চাইলে আমাদেরকে যুক্ত হতে পারেন। তাহলে চলুন দেরি না করে শুরু করা যাক।

আপনাদেরকে বোঝানোর সুবিধার্থে আমি ধরে নিলাম আপনি কলেজে পড়েন।

কৌশল নাম্বার ১ কলেজ মিস করুন

মেয়েটিকে না জানিয়ে হঠাৎ করে একদিন কলেজ মিস করুন। আপনি যখন কলেজে থাকেন তখন একটি মেয়েটির আচরণগুলো লক্ষ্য করেছেন। কলেজে মেয়েটি কি কি করে এবং কেমন আনন্দে থাকে এবং ক্লাসে কতটা মনোযোগী থাকে? ইত্যাদি ইত্যাদি। তো মেয়েটি যদি আপনি ফ্রেন্ড হয়ে থাকে তবে অবশ্যই কলেজে আসার আগে এবং পরে খোঁজ নেয় যে আপনি কলেজে আসবেন কিনা এমনটা অবশ্য আপনাদের সাথে হয়ে থাকবে। এখন মেয়েটি আপনাকে ভালোবাসে কিনা সেটা জানার জন্য আর একটি কাজ করতে হবে। তা হল মেয়েটিকে না জানিয়ে একদিন হঠাৎ করে স্কুল বা কলেজ মিস করতে হবে। 

পাশাপাশি আপনার কোন বন্ধুর মোবাইলে ফোন দিয়ে বলতে হবে সে যেন মেয়েটির উপর নজর রাখে যে আজকে মেয়েটির আচার-আচরণ আপনার কারণে কোন চেঞ্জ দেখা যায় কিনা। সেটি হতে পারে মেয়েটি কলেজে মন খারাপ করে থাকা। ক্লাসে অমনোযোগী হয়ে বসে থাকা অথবা ক্লাসে আগের মত হৈ হোল্লড় না করা ইত্যাদি ইত্যাদি। এমন যেকোনো ধরনের চেঞ্জ যদি দেখতে পান তাহলে একশো পার্সেন্ট শুরু হয়ে যাবে মেয়েটি আপনাকে ভালোবাসে। এটা আপনার কোন সন্দেহ রাখার দরকার নেই।

প্রশ্ন নাম্বার ২ মেয়েটির ব্যাপারে কোন কমেন্ট করুন

আপনার বান্ধবী আপনাকে ভালোবাসে কিনা তা বোঝার জন্য মেয়েটির ব্যাপারে কমেন্ট করুন এবং কৌশল অবলম্বন করুন। যদি মেয়েটি আপনাকে সত্যি সত্যি ভালোবেসে থাকে তাহলে আপনার সকল পছন্দ অপছন্দকে সে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেবে। অর্থাৎ আপনি তাকে বললেন তোমাকে এই পোশাকে অনেক বেশি সুন্দর লাগে। যদি মেয়েটি আপনাকে সত্যি সত্যি ভালোবেসে থাকে তাহলে তারপর থেকে দেখবেন যে মেয়েটি পোশাকটি সবথেকে বেশি পড়বে। তাই আজও আপনাকে এই টেকনিকটা ইউজ করতে হবে।

মেয়েটি হয়তো করে যদি ভিন্ন রকম জামা পড়ে আসে। আপনি একটু কাজ করবেন আপনার লক্ষ্য করে দেখুন মেয়েটি কোন জামা কম পরে। তার মানে মেয়েটি যে জামাতে সবচেয়ে কম পড়ে আছে। নিশ্চয়ই সে জামা তার পছন্দ না।  ওই জামা পরে যেদিন আজ কলেজে আসবে আপনি সেদিন দেখা করবেন এই জামাতে পড়ে তোমাকে খুব ভালো লাগে। অন্যদের কেমন লাগে এবং তোমার কেমন লাগে তা আমি জানিনা কিন্তু এই জামাতে আমার তোমাকে দেখতে অনেক বেশি ভালো লাগে। ব্যাস আপনার কাজ হয়ে গেছে। 

এখন পরবর্তী তো লক্ষ্য করে দেখবেন যে মেয়েটি যে ওই জামাতে এখন কলেজে আসতেছে। তাই যদি হয় তাহলে ১০০ পার্সেন্ট কনডম হয়ে যান মেয়েটি আপনাকে পছন্দ করে বা ভালোবাসি।এখন আরও একটি প্রবলেম অনেকে হয়তো ভাবতেছেন যে মেয়েটি যদি কলেজে নিয়মিত বোরকা পড়ে আসে, স্কুলে পড়ল সেখানে যদি মেয়েটি স্কুল ড্রেস পরে আসে তাহলে কি করবেন? এটির একটি সহজ সমাধান রয়েছে। আপনি চাইলে এই কৌশলটি অন্য কিছু তো ইউজ করতে পারেন। যেমন তার হিজাব বা হিজাব বাধার স্টাইল, তার চুল বাধার স্টাইল, লিবিসটিক এর রং ইত্যাদি ইত্যাদি। যেকোনো কিছুতেই কমেন্ট করে তার মাঝে চেঞ্জ হয় কিনা সেটা লক্ষ্য করবেন তাহলেই হবে।

কৌশল নাম্বার ৩ মেয়েটিকে জানান আপনি কলেজে আসবেন না

আপনার মেয়েটি কি কোন ভাবে জানাতে হবে যে আপনি কয়েকদিন কলেজে আসবেন না। এটি মেয়েটিকে জানানোর পর মেয়েটির দিকে খেয়াল করুন। বিষয়টা জানার পর মেয়েটার মন খারাপ হয়ে গেল কিনা এবং মেয়েটি কি এটা জানার পর চেষ্টা করতেছে যে, আপনি কেন কলেজে আসবেন না? কি হয়েছে? কয়দিন কলেজে আসবেন না? আবার আসবেন কবে? ইত্যাদি ইত্যাদি। মেয়েটি অবশ্যই অবশ্যই জানতে চাইবে আপনি আবার কবে থেকে আসবেন।

যখন আপনাকে মেয়েটি এই প্রশ্ন করবে তখন আপনি পুরো বিষয়টি কৌশলে এড়িয়ে যান। তখন আপনি টপিক চেঞ্জ করে অন্য ব্যাপারে কথা তুলবেন। দেখবেন আবার জানতে চাইবে আপনি কবে থেকে আসবেন? আপনি যতই উত্তরটা এড়িয়ে যান না কেন মেয়েটি বারবার বলবে এবং এটা শোনার পর থেকে মেয়েদের মনটা অনেক খারাপ হয়ে থাকবে। যেটি মেয়েটিকে লক্ষ্য করলে ভালোভাবে বোঝা যাবে। সুতরাং এমনটি যদি হয়ে থাকে তবে ১০০% কনফার্ম হয়ে যান আপনার বান্ধবী আপনাকে ভালোবাসে।

যে লক্ষণ গুলো দেখলে বুঝতে পারবেন আপনাকে আপনার বান্ধবী ভালোবাসে কিনা?

তো বন্ধুরা এমন অনেক আরো কৌশল আছে যেগুলো কাজে লাগে আপনি খুব সহজে জানতে পারবেন যে আপনার বান্ধবী আপনাকে ভালোবাসে কিনা। আজ সেগুলো থাক অন্য কোনদিন সেগুলো নিয়ে আলোচনা করা হবে। কেননা আমরা আপনাদেরকে যে তিনটি কৌশল শিখিয়ে দিয়েছে সেগুলো কাজে লাগিয়ে আপনি খুব সহজে কনফার্ম হতে পারবেন যে আপনার বান্ধবী আপনাকে ভালোবাসে কিনা।

এবার আমরা আপনাদের মাঝে কয়েকটি লক্ষণ শেয়ার করব।  যেগুলো কোন মেয়ের মধ্যে থেকে থাকলে, বুঝে নেবেন সেই মেয়েটি আপনাকে ভালোবাসে। মেয়েটি যদি সত্যি আপনাকে ভালোবেসে থাকে তবে তার মাঝে এই লক্ষণগুলো আপনি দেখতে পারবেন।

  • আপনি তার সামনে অন্য কোন মেয়ের প্রশংসা করলে সেই মেয়েটি তার সহ্য করতে পারবে না। 
  • আপনার বলা সকল কথা সে মনোযোগ দিয়ে শুনবে এবং সব মনে রাখবে।
  • সব সময় আপনার আশেপাশে থাকার চেষ্টা করবে এবং আপনার সংস্পর্শে থাকার চেষ্টা করবে। 
  • সে সব সময় অন্যদের থেকে আপনাকে আলাদা চোখে দেখবে। 
  • আপনার সাথে সবসময় অন্যদের থেকে আলাদা আচরণ করবে।
  • আপনার কথাগুলো সব সময় সে প্রাধান্য দিবে।
  • আপনার সাথে সব সময় কথা বলার জন্য নানা রকম বাহানা খুঁজতে থাকবে।এবং সুযোগ পেলে আপনার সাথে কথা বলবো।

আর্টিকেল নিয়ে কোন প্রশ্ন থেকে থাকলে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানিয়ে দিবেন। আমরা দ্রুত আপনার সমস্যার সমাধান করার চেষ্টা করব এবং আর্টিকেলটা যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তবে অবশ্যই আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ।

আমার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করব
About The Author
রিয়া আক্তার
আমি রিয়া আক্তার। মেয়ে পটানোর থেরাপি ওয়েবসাইটের সকল আর্টিকেল আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে লিখেছি। আমি চাই প্রত্যেকটা মানুষ যাতে তার প্রিয়জনের কাছে তার ভালোবাসার কথা বলতে পারে ও প্রিয় জনকে ভালবাসতে পারে।