1. riyaakhter747@gmail.com : Riya Akther : Riya Akther
মেয়েদের হাসানোর মেসেজ ১০০% কাজ করবে
মেয়েদের হাসানোর মেসেজ
মেয়েদের হাসানোর মেসেজ ১০০% কাজ করবে

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সবাই ভাল আছেন আজ আমি আপনাদের মাঝে শেয়ার করব মেয়েদের হাসানোর মেসেজ, টিপস, জোকস। আমরা সবাই জানি মেয়েদেরকে হাসাতে পারলে মেয়েরা খুব সহজে আপনার প্রতি ইন্টারেস্ট দেখাতে শুরু করে। সোজা কথা মেয়েদেরকে পটানোর সবথেকে সহজ যে রাস্তা গুলো রয়েছে তার মধ্যে একটি হল মেয়েদেরকে হাসানোর উপায়।

এখন আপনারা বলবেন মেয়েদেরকে হাসানোর তো এমন কোন সোজা বিষয় না। কয়েকটি জোকস বলে দেবো তাতেই হেসে যাবে। আচ্ছা ভাই আমাকে একটা জিনিস বলেন তো আপনি যে মেয়েটিকে পছন্দ করেন সে কি অনলাইনে একটিভ থাকেনা? সে কি ফেসবুকে কোন জোকস পড়ে না? অথবা অন্য কোন ছেলেটাকে জোকস শোনায় না? আপনাকে যে কাজটি করতে হবে সেটি হল সম্পূর্ণ আলাদা।

মেয়েদের হাসানোর মেসেজ ১০০% কাজ করবে

হয়তো আপনি বিষয়টি বুঝতে পারেননি। মেয়েদেরকে হাসানোর জন্য অবশ্যই আপনার সেই মেয়েটির সাথে পরিচিত বুঝে মজা করতে হবে। উদাহরণস্বরূপ মেয়েটি যদি আপনার পরিচিত হয় তবে আপনি ফ্রি মাইন্ডের একটি খোলামেলা জোকস শুনিয়ে দিলেই মেয়েটি হেসে দিবে। কিন্তু মেয়েটি যদি আপনার অপরিচিত হয় অথবা সবেমাত্র আপনি মেয়েটির সাথে পরিচিত হয়েছেন সে ক্ষেত্রে আপনার পরিচিতি বিবেচনা করে কথা বলতে হবে। সে খেতে আশেপাশে পরিস্থিতির সাথে তুলনা করে একটি হাস্যকর পরিস্থিতি তার সামনে তুলে ধরতে হবে। আজ আমরা আপনাদের মাঝে এ ধরনের কয়েকটি মেয়েদের হাসানোর মেসেজ শেয়ার করব।

১.  দু হাত বাড়িয়ে আকাশ পানে চাও,

নিজেকে পাখি মনে হবে।

জোছনা রাতে চাঁদের পানে চাও,

নিজেকে পরি মনে হবে।

মাটির সবুজ ঘাসের পানে চাও,

নিজেকে ছাগল মনে হবে।


২. যখন তোমার একা লাগবে,

তুমি চারদিকে কিছুই দেখতে পাবে না,

দুনিয়া টা ঝাপসা হয়ে আসবে।

তখন তুমি আমার কাছে এসো।

তোমাকে চোখের ডাক্তার দেখাবো।


৩. তুমি আসবে বলেই ,

আকাশ মেঘলা বৃষ্টি এখনো হয় নি

তুমি আসবে বলেই ,

কৃষ্ণচূড়ার ফুলগুলো ঝড়ে যায়নি।

তুমি আসবে বলেই ,

অন্ধ কানাই বসে আছে গান গায়নি

তুমি আসবে বলেই ,

চৌরাস্তার পুলিশটা ঘুষ খায়নি।


৪.এক বছর পর দেখলাম,

তারপর ধরলাম,

ভালো লাগল একটু টিপলাম,

নরম লাগল তারপর একটু

চুষে দিলাম মজা লাগল।

তাইতো বলি বছরের প্রথম

পাকা আমের স্বাদ-ই আলাদা


৫.বেশিরভাগ মানুষ রাতে করে,

কেউ কেউ আবার দিনেও করে।

কেউ টানা ত্রিশ মিনিট করে,

কেউ কেউ আবার এক ঘন্টা ও করে।

কেউ সারারাত করে,

এভাবেই মানুষ মোবাইল চার্জ করে।


৬. যখন তোমার একা লাগবে,

তুমি চারদিকে কিছুই দেখতে পাবে না,

দুনিয়া টা ঝাপসা হয়ে আসবে।

তখন তুমি আমার কাছে এসো।

তোমাকে চোখের ডাক্তার দেখাবো।


৭. তুমি আসবে বলেই ,

আকাশ মেঘলা বৃষ্টি এখনো হয় নি

তুমি আসবে বলেই ,

কৃষ্ণচূড়ার ফুলগুলো ঝড়ে যায়নি।

তুমি আসবে বলেই ,

অন্ধ কানাই বসে আছে গান গায়নি

তুমি আসবে বলেই ,

চৌরাস্তার পুলিশটা ঘুষ খায়নি।


৮. এইযে ভাইয়েরা শুনছেন,

কুকুরের বাচ্চারা,

শুয়োরের বাচ্চারা,

বানরের বাচ্চারা,

গাধার বাচ্চারা,

বিড়ালের বাচ্চারা,

শেয়ালের বাচ্চারা যদি কামরায়


৯.  আপনে একটা গরু,

না একটা ছাগল,

না একটা ভেড়া,

না না না বাজার থেকে

একটা দেশী মুগরী কিনে আমাকে

দাওয়াত দিয়ে খাওয়াবেন।


১০. এক বছর পর দেখলাম,

তারপর ধরলাম,

ভালো লাগল একটু টিপলাম,

নরম লাগল তারপর একটু

চুষে দিলাম মজা লাগল।

তাইতো বলি বছরের প্রথম

পাকা আমের স্বাদ-ই আলাদা


আমরা উপরে আপনাদের মাঝে জনপ্রিয় কয়েকটি মেয়ে হাসানোর মেসেজ শেয়ার করেছি। এগুলো চাইলে আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে শেয়ার করে তাকে খুব হাসাতে পারেন। আবার আপনি চাইলে এগুলো মজার মজার জোকস হিসেবে ব্যবহার করে আপনার ফেসবুকে অথবা অন্য কোন সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে সবাইকে হাসতে পারেন। 

মেয়েদের হাসানোর জোকস

এবার আমরা আপনাদের মাঝে শেয়ার করব মেয়েদেরকে হাসানোর জনপ্রিয় কয়েকটি জোকস। একজন মেয়েকে খুশি করার জন্য আপনারা চাইলে অনেক উপায় বেঁচে নিতে পারেন। যেমন তাকে সুন্দর সুন্দর জোকস বলে হাসাতে পারেন। আবার মেয়েটি যদি আপনার অপরিচিত হয়ে থাকে অথবা সময় মত পরিচিত হতে তবে পরিস্থিতির বিবেচনা করে এমন কিছু কাজ করতে পারেন যাতে করে মেয়েটি অটোমেটিকলি হেসে যায় এবং আপনার উপর ইম্প্রেস হয়ে যায়।

১। তুলতুলে গাল তোমার নরম দুটি ঠোট,

সুন্দর ওই নাকের উপর দারুন দুটি চোখ,

রেশমি কালো লম্বা চুল, মিস্টি তোমার হাসি,

দাঁত নেই দেখে বুঝলাম বয়স তোমার ৮০ !!


২।  শীতকাল আসছে সবার প্রেম হবে, বিয়ে হবে।

আর আমার সর্দি কাশি হবে।


৩। স্ত্রী বমি করলে সুখবর, আর স্বামী বমি করলে – সালা আজকে আবার খেয়ে এসছে


৪। শ্বাশুড়ি: কোনো কাজ যখন করতে পারো না, তাহলে বিয়ে করলে কিসের জন্য ?

বউ : বউ সেজে আপনার ছেলের সাথে ছবি তোলার জন্য।


৫। স্যার: গরু আমাদের কি দেয় ?

ছাত্র: গুতো দেয় স্যার।


মেয়েদের হাসানোর টিপস

যারা মানুষকে খুব সহজে হাসাতে পারে তারা খুব সহজে মানুষের মাঝে গুরুত্ব পেয়ে যায়। তাই শুধুমাত্র যে মেয়েদেরকে পটানোর জন্য হাসানো শিখতে হবে এমনটা নয় বন্ধু-বান্ধবের মাঝে মাঝে গুরুত্ব তুলে ধরার জন্য আপনি হাসানো শিখে নিতে পারেন। কোন মেয়েকে যদি আপনি হাসাতে চান তবে অবশ্যই যে বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে সেটি হল আপনি কোন বিষয়টির উপর অথবা কি উপায়ে আপনি তাকে হাসাতে চান। ধরুন আপনি কোন মেয়ের সাথে কথা বলছেন এবং সে সময় প্রচন্ড গরম। তখন আপনি চাইলে গরমকে কেন্দ্র করে একটি ব্যঙ্গ উক্তি তৈরি করলেন এবং একটি হাস্যকর পরিস্থিতি বানালেন। দেখবেন মেয়েটা অটোমেটিকলি হাসা শুরু করে দিয়েছে। আশা করি পুরো বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন।

আশা করি আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লেগেছে। এ ধরনের নতুন নতুন তথ্য সবার আগে পেতে আমাদের ওয়েব সাইটে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন। আর আপনি যদি ইতিমধ্যে আমাদের ওয়েবসাইটটি সাবস্ক্রাইব করে রাখেন তবে আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

আমার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করব
About The Author
Riya Akther
আমার নাম রিয়া আক্তার। আমি একজন স্টুডেন্ট। মেয়ে পটানোর থেরাপি সম্পন্ন ব্যতিক্রমধর্মী একটি ওয়েবসাইট। আমি মূলত মেয়ে পটানোর থেরাপির ওয়েবসাইটের সকল আর্টিকেল লিখেছি। আমি আমার আর্টিকেলে আপনাদের মাঝে যেসব আইডিয়া শেয়ার করেছি এগুলো মূলত আমার বন্ধু বান্ধব ও বান্ধবীদের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে নিয়েছি। আমার এই ওয়েবসাইটে কাজ করার উদ্দেশ্য হচ্ছে উদ্দেশ্য হচ্ছে যাতে করে সবাই তার ভালোবাসার মানুষের কাছে তার মনের কথা খুব সহজে জানাতে পারে এবং আমার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আমি যাতে আপনাদের ভালোবাসার মানুষটিকে পেতে আপনাদেরকে সকল ধরনের সাহায্য করতে পারি।