1. riyaakhter747@gmail.com : রিয়া আক্তার : রিয়া আক্তার
যে নাম গুলো ডাকলে আপনার গার্লফ্রেন্ড খুশি হবে
যে নামে মেয়েরা খুশি হয়
যে নাম গুলো ডাকলে আপনার গার্লফ্রেন্ড খুশি হবে

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সবাই ভাল আছেন আজ আমি আপনাদের মাঝে শেয়ার করব যে নাম গুলো ডাকলে আপনার গার্লফ্রেন্ড খুশি হবে। অর্থাৎ নিজের ভালোবাসার মানুষটিকে আপনি কি নামে ডাকবেন? সে বিষয়ে আজকে আমরা আলোচনা করব। আমাদের মধ্যে অনেকে আছেন যারা নিজেদের গার্লফ্রেন্ডকে জানু, বাবু এসব নামে ডেকে থাকেন তবে এসব নাম ছাড়াও আরো অনেক নাম রয়েছে যেগুলো ধরে ডাকলে গার্লফ্রেন্ড আরো বেশি খুশি হয়। আজ আমরা আপনাদের এসব নামগুলো শেয়ার করব এবং কিভাবে এসব নাম ধরে নিজেদের ভালবাসা মানুষকে ডাকবেন তা নিয়েও আলোচনা করা হবে আজকে।

যে নাম গুলো ডাকলে আপনার গার্লফ্রেন্ড খুশি হবে

সাধারণত বয়ফ্রেন্ড গার্লফ্রেন্ড এর মধ্যে এ ধরনের কথাবার্তায় হয়ে এবং তারা কথা বলার সময় এ ধরনের নামে একজন আরেকজন কে ডেকে থাকে। সাধারণত বয়ফ্রেন্ডের গার্লফ্রেন্ড মধ্যে যেসব কথাগুলো থাকে সেগুলো অনেকটা এরকম

  • মেয়ে- বাবু কি করছো?
  • ছেলে- জানু তোমাকে মিস করতেছি।
  • মেয়ে- সত্যি।
  • ছেলে- হ্যাঁ ময়না পাখি।
  • মেয়ে- সো সুইট, আই লাভ ইউ জান।
  • ছেলে- আই লাভ ইউ টু বেবি। 

আমরা সচরাচর গার্লফ্রেন্ডকে এসব নামে থেকে থাকলেও এর বাইরে অনেক সুন্দর নাম রয়েছে।আজকে আমি আপনাদের মাঝে এ ধরনের কোন ১৫টি রোমান্টিক ডাক নাম শেয়ার করব। আপনি যদি আপনার গার্লফ্রেন্ডের জন্য সেরা ডাক নামটি পেতে চান তবে অবশ্যই এই আর্টিকেলটি ধৈর্য সহকারে সম্পন্ন পড়ুন । তাহলে চলুন আর দেরি না করে শুরু করা যাক।

যে নামে মেয়েরা খুশি হয়

উপরে আমরা আপনাদের সুবিধার্থে একটি ভিডিও এড করে দিয়েছে যেখানে আপনারা নিজের পছন্দের মানুষকে কি নামে ডাকবেন সে সম্পর্কে বিস্তারিত একটি ধারণা পেয়ে যাবেন। এছাড়াও আপনাদের যদি বুঝতে সমস্যা হয় তবে নিচে আমরা ধারাবাহিকভাবে প্রতিটি বিষয় আলোচনা করেছে। সেখানেও আপনারা পুরো বিষয়টি বুঝতে পেরে যাবেন তাই কষ্ট করে পুরো আর্টিকেল পড়ুন।

এছাড়াও এই ধরনের আরো নতুন নতুন তথ্য পেতে এবং মেয়ে পটানোর আরো কৌশল জানতে না আমাদের ওয়েবসাইটে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন এবং আপনি চাইলে আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে পারেন। আর আর্টিকেলটি নিয়ে যদি আপনার কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তবে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানিয়ে দেবেন। আমরা দ্রুত আপনার সমস্যার সমাধান করার চেষ্টা করব। আমরা আপনাদের মাঝে সেরা ১৫ টি ডাকনাম শেয়ার করবো। সেখান থেকে আপনি আপনার মনের মত একটি ডাক নাম চাইলে বেছে নিতে পারেন আপনার মনের মানুষের জন্য।

নাম্বার ১ টুকটুকি

আপনার গার্লফ্রেন্ড যদি অল্প বয়সে হয়ে থাকে এবং সে যদি দেখতে অনেক কিউত হয়। তাহলে আপনি তাকে টুকটুকি নামে ডাকতে পারেন। আশা করি এই নামে ডাকলে আপনার গার্লফ্রেন্ড অনেক অনেক খুশি হবে।

নাম্বার ২ লক্ষ্মীটি

এই নামটি আমাদের অনেকের কাছে বেশ পরিচিত এবং বিশেষ করে নিজের ভালোবাসা মানুষের রাগ ভাঙ্গানোর ক্ষেত্রে এই নামটি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। তবে গ্রাম অঞ্চলে সাধারণত মায়াবী চেহারা মেয়েদেরকে লক্ষী মেয়ে বলা হয়। কাজে আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে খুশি করতে অথবা আপনার গার্লফ্রেন্ডের রাগ ভাঙাতে লক্ষ্মীটি বলে ডাকতে পারেন। যেমন আমার লক্ষ্মীটি। অথবা আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে বলতে পারেন প্লিজ লক্ষীটি রাগ করো না।

নাম্বার তিন রাজকুমারী বা রাজকন্যা

আপনার গার্লফ্রেন্ড কে আপনি রাজকন্যার মতোই মনে করেন এটাই স্বাভাবিক। তাই এখন থেকে আপনি চাইলে আপনার গার্লফ্রেন্ডকে রাজকুমারী অথবা রাজকন্যা নামে ডাকতে পারেন। আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে কতটা ভালোবাসেন সেটা বোঝানোর জন্য এখন থেকে আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে রাজকুমারী বা রাজকন্যা ডাকার অভ্যাস করুন। যেমন- রাজকন্যা রাজকুমারী কেমন আছো? কি করতেছ? আর এটা শুনে আপনার ভালবাসার মানুষ অবশ্যই আপনার উপর আরো বেশি ইন্টারেস্ট হবে।

নাম্বার ৪ টুনটুনি বা টুনি

আমরা সবাই জানি টুনটুনি একটি পাখির নাম। আবার অনেকে পাখি ডেকে খালি টুনি নামেও ডেকে থাকেন। এর কারণ হলো পাখিটা অনেক ছোট এবং দেখতেও অনেক কিউট। তাই আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে আদর করে টুনটুনি বা খালি টুনি বলেও ডাকতে পারেন।

নাম্বার ৫ পাগলী

আপনার গার্লফ্রেন্ড অনেক সময় আপনার কাছে বিভিন্ন ছোট ছোট আবদার করে বসে এবং নানারকম ছোট ছোট মজার পাগলামি করে থাকে। তখন আপনি চাইলে মজা করে তাকে পাগল বলে ডাকতে পারেন। তবে এতে করে কখনো আপনার গার্লফ্রেন্ড আপনার উপর রাগ করবে না বরং আরো খুশি হবে। এই নামটি সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় এবং সবচেয়ে বেশি ভালোবাসা বা আবেগ মাখা নাম এটি। এই নামের সাথে মোটামুটি আমরা সবাই কম বেশি। তাই এটা নিয়ে নতুন করে আর বলার কিছু নেই।

নাম্বার ৬ ময়না পাখি

আমাদের সবার নিশ্চয় জানা আছে ময়না পাখি খুব সহজে মানুষের পোষ মানে এবং তাকে কথা সেখানে সে কথা বলতে পারে। শুধু তাই নয় আপনি তাকে যা শেখাবেন সে তাই করতে পারে। এ পাখিটিকে আপনি যতটা ভালো কথা দিবেন পাখিটিও ঠিক আপনাকে ততটাই ভালবাসবে। তাকে আপনি ভালোবেসে যা যা শিখাবেন সে সে অনুযায়ী সব সময় চলবে। কাজে আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষটাকে আদর করেন ময়না পাখি বলে ডাকতে পারেন।

নাম্বার ৭ চাঁদ কুমারী

চাঁদ কুমারী বলতে চাঁদের মত সুন্দর মেয়েকে বোঝানো হয়। চাঁদ দেখতে সবার ভালো লাগে। কেননা চাঁদের আলো এবং চাঁদ দুটোই দেখতে সুন্দর। তাই আমাদের মধ্যে অনেকে আছেন। যারা নিজের মেয়েকে যাদের সাথে তুলনা করে থাকে। আবার অনেকে সুন্দরী মেয়েদেরকে চাঁদের সাথে তুলনা করে থাকেন। তাই আপনার গার্লফ্রেন্ড যদি সুন্দরী হয়ে থাকে অথবা আপনি যদি আপনার গার্লফ্রেন্ডের চাঁদের মত সুন্দর মনে করেন। সে ক্ষেত্রে আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে চাঁদ কুমারী বলে রাখতে পারেন।

নাম্বার ৮ মায়াবতী

মায়াবতী বলতে মূলত মায়াবী চেহারার মেয়েকে অথবা যাকে দেখলে মনের মাঝে মায়া বা ভালোবাসা জাগে এমন মেয়েকে বোঝানো হয়। এছাড়া বিভিন্ন কবিতা ও উপন্যাসে মায়াবতী শব্দ ব্যবহার করার কারণে এই শব্দটি আমাদের কাছে দেশ পরিচিত। আমার মতে প্রিয় মানুষটিকে ঢাকার জন্য মায়াবতী একটি অসাধারণ ভালোবাসা মাথা ডাক নাম হতে পারে।

নাম্বার ৯ পরান পাখি বা প্রাণ পাখি

পরান পাখি বা প্রান পাখি বলতে মানুষের আত্মা বা মানুষের প্রাণ কে বোঝানো হয়। আপনি যদি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে আপনার জীবন বা প্রান মনে করেন তাহলে আপনি তাকে ভালোবেসে পরান পাখিটা বা প্রাণ পাখি নামে ডাকতে পারেন। এতে করে আপনার গার্লফ্রেন্ড আপনার উপর আরো বেশি ইম্প্রেস হবে এবং আপনাকে আরো বেশি ইম্পোর্টেন্স দিবে।

নাম্বার ১০ রাজরানী

রাজরানী বলতে মূলত রাজার রানী কে বোঝানো হয়। আর আপনি যদি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে রাজরানী বলে থাকেন। তার মানে হল আপনি রাজা আর সে হলো আপনার রানী। এটা একটা অনেক রোমান্টিক ব্যাপার। কেননা এতে করে আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে বুঝাতে পারছেন যে আপনার জীবনে তার গুরুত্ব ঠিক কতটা? সেও তখন আপনার কে আরো বেশি ইম্পর্টেন্স দেবে এবং এই নামটি শুনে আরও বেশি খুশি হবে। তাই এখন থেকে আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে অথবা ভালোবাসার মানুষটিকে এই নামে ডাকার অভ্যাস করে নিন।

নাম্বার ১১ রূপবতী

রূপবতী বলতে রূপসী নারীকে বোঝানো হয় অর্থাৎ যে নারী অনেক সুন্দরী তাদেরকে মূলত রূপবতী নামে ডাকা হয়। আর আমরা সবাই নিজেদের গার্লফ্রেন্ডকে নিজেদের নজরে সুন্দরী দেখে থাকি। তাই আপনি চাইলে আপনার গার্লফ্রেন্ডকে রূপবতী বলে ডাকতে পারেন। এতে করে আপনার গার্লফ্রেন্ড আপনার উপর আরো বেশি ইমপ্রেস হবে। কেননা সেও চায় তার ভালোবাসার মানুষটি তাকে সুন্দর দেখুক।

নাম্বার ১২ প্রিন্সেস

প্রিন্সেস মানের রাজকুমারী বিভিন্ন চলচ্চিত্রে প্রিন্সেস প্রিন্স এর শব্দটি বহুল ব্যবহার করা হয়েছে। বিশেষ করে রোমানটিক কাপলদের ক্ষেত্রে এই নামগুলো বেশি ব্যবহার করা হয়। তাই আপনিও চাইলে আপনার গার্লফ্রেন্ডকে প্রিন্সেস বলে ডাকতে পারেন। এতে করে আপনার গার্লফ্রেন্ড আপনার উপর আরো বেশি খুশি হবে। যেমন আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে ভালোবেসে বলতে পারেন- প্রিন্সেস কি করতেছ?প্রিন্সেস চলো শপিংয়ে যায়।

নাম্বার ১৩ সানসাইন

আপনার জীবনে যদি এমন কেউ কখনো এসে থাকে। যে আপনার প্রতিটি দিন গুলোকে রঙিন করে। তোলে তবে আপনি তাকে সানসাইন নামে ডাকতে পারেন। এতে করে একসাথে দুটি কাজ হয়ে যাবে এক আপনি কতটা রোমান্টিক তা আপনার গার্লফ্রেন্ডকে বোঝাতে পারবেন এবং আপনার কাছে তার মূল্য টা ঠিক কত সেটিও আপনি খুব সহজে আপনার ভালোবাসার মানুষটিকে বোঝাতে পারবেন।

নাম্বার ১৪ পুতুল

আপনি চাইলে আপনার ভালোবাসার মানুষটাকে পুতুল নামে ডাকতে পারেন। শুধু চাই না অনেক মেয়ের নাম পুতুল করে থাকে। এর কারণ হলো বাবা-মা ভালোবেসে তার মেয়ের নাম পুতুল রেখেছে। তাই বুঝতে পারছেন পুতুল নামে কতটা ভালোবাসা জড়িয়ে রয়েছে।

নাম্বার ১৫ নীল পরি

আপনি আপনার গার্লফ্রেন্ডকে অথবা আপনার ভালবাসার মানুষটিকে নীল পরি নামেও  পারেন ডাকতে পারেন। বিভিন্ন কাব্যে আমরা নীলপরী শব্দটি সম্পর্কে জানতে পারি এর মাধ্যমে মূলত সৌন্দর্য এবং ভালোবাসাকে বোঝানো হয়েছে। তাই আপনিও চাইলে আজ থেকে আপনার ভালোবাসার মানুষটিকে নীল পরি নামে ডাকতে পারেন ।

উপরে আমরা আপনাদের মাঝে যেকোনো টির নাম শেয়ার করেছি এর মধ্যে কোনটি আপনার কাছে সব থেকে বেশি ভালো লেগেছে তা অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানাতে ভুলবেন না এবং আর্টিকেলটি যদি ভালো লেগে থাকে তবে অবশ্যই আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন। ধন্যবাদ।

আমার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করব
About The Author
রিয়া আক্তার
আমি রিয়া আক্তার। মেয়ে পটানোর থেরাপি ওয়েবসাইটের সকল আর্টিকেল আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে লিখেছি। আমি চাই প্রত্যেকটা মানুষ যাতে তার প্রিয়জনের কাছে তার ভালোবাসার কথা বলতে পারে ও প্রিয় জনকে ভালবাসতে পারে।