1. riyaakhter747@gmail.com : Riya Akther : Riya Akther
মেয়েদের হাসানোর প্রশ্ন এই ৩টি প্রশ্ন করলে মেয়েরা খুশি হয়
মেয়েদের কে এই ৩টি প্রশ্ন করলে বেশি খুশি হয়
Riya Akther
  • 2 মাস আগে
  • 1784
মেয়েদের হাসানোর প্রশ্ন এই ৩টি প্রশ্ন করলে মেয়েরা খুশি হয়

হ্যালো বন্ধুরা আশা করি সবাই ভাল আছেন আজকে আমি আপনাদের মাঝে শেয়ার করব মেয়েদের কে মেয়েদের হাসানোর প্রশ্ন এই ৩টি প্রশ্ন করলে বেশি খুশি হয়। আমাদের মাঝে অনেকে আছেন যারা নিচে পছন্দের মেয়েটিকে হাসাতে চান অথবা সব সময় খুশি রাখতে চান কিন্তু কি করে রাখতে হবে তা জানেন না। চিন্তা করার কোনো কারণ নেই আজ আমরা আপনাদের মাঝে এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করব। আশা করি আপনি আপনার সমস্যার ১০০% সমাধান পেয়ে যাবেন।

আপনাদের সুবিধার্থে আমরা যে মেয়েদের হাসানোর প্রশ্ন একটি ভিডিও দিয়ে দিয়েছি যে ভিডিওতে মেয়েদের সাথে কথা বলার টপিক এবং কিভাবে তা শুরু করবেন তা নিয়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা হয়েছে। ভিডিওটি একটু বড় হওয়ায় কষ্ট করে পুরো ভিডিওটি দেখুন আশা করি আপনি আপনার সমস্যার সমাধান ১০০% পেয়ে যাবেন গ্যারান্টি দিলাম। এরপর আপনার যদি কোথাও বুঝতে সমস্যা হয়ে থাকে তবে নিচে আমরা পুরো বিষয়টি নিয়ে ধারাবাহিকভাবে আলোচনা করেছি। প্রত্যেকটি বিষয় ধাপে ধাপে বিস্তারিত ভাবে বর্ণনা করা হয়েছে আপনি চাইলে পুর আর্টিকেলটি নিচে পড়ে নিতে পারেন।

মেয়েদের হাসানোর প্রশ্ন এই ৩টি প্রশ্ন করলে মেয়েরা খুশি হয়

অনেকে আছেন যারা মেয়েদের সাথে কথা বলতে ভয় পান অথবা নিজের ভালোবাসার মানুষটাকে খুশি রাখার উপায় সম্পর্কে কোন ধারণা নেই। তারা কষ্ট করে পুরো আর্টিকেলটি পড়ুন তাহলে পুরো বিষয়টি বুঝতে পারবেন। আমরা মূলত আপনাদের মাঝে তিনটি টিপস শেয়ার করব।এগুলো মূলত প্রশ্ন যেগুলো আপনি আপনার পছন্দের মানুষকে করে খুব সহজে তার মন জয় করে নিতে পারেন। মেয়েরা কোন কোন বিষয় বা টপিকের উপর কথা বলতে সবচেয়ে বেশি তার উপর একটি আর্টিকেল লেখার জন্য এরই মধ্যে আমাদের কাছে ব্যাপক কমেন্ট এসেছে যার কারণে আমরা আপনাদের কাছে এই আর্টিকেল শেয়ার করে করছি।

আমরা আপনাদের কাছে এমন কিছু টপিক শেয়ার করব।যেগুলোর উপর মেয়েদের সাথে কথা বলে দেবেন মেয়েরা আপনাদের সাথে কথা বলে এতটা মজা পাবে যে আপনার সাথে একবার কথা বলতে শুরু করলে আর আপনাকে ছাড়তে চাইবেন না। এসব টপিক নিয়ে আলোচনা করার পর অবশেষে টপিক নিয়ে মেয়েটিকে নানা রকম প্রশ্ন করতে হবে আজ আমরা আপনাদেরকে সেসব বিষয় ধারাবাহিকভাবে শিখিয়ে দেবো। তাহলে চলুন আর দেরি না করে শুরু করি। এরপরে যদি আপনাদের কোন সমস্যা থেকে থাকে তবে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানিয়ে দেবেন আমরা দ্রুত আপনার সমস্যার সমাধান করে দেওয়ার চেষ্টা করব এবং নতুন নতুন এ ধরনের আরও তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি সাবস্ক্রাইব করে রাখুন। এছাড়া আপনি চাইলে আমাদের ফেসবুক পেইজে যুক্ত হতে পারেন।  মেয়েদের হাসানোর প্রশ্ন

নাম্বার ১ আজ সারাদিন কি কি করলে?

আপনি জেনে অবাক হবেন যে ৯৫% ছেলেরাই তাদের পছন্দের মানুষকে এই প্রশ্নটি কখনোই করে না অথবা করতে চায় না। এমনও অনেক ছেলে আছে তারা এখন পর্যন্ত এই টপিকটি নিয়ে তাদের পছন্দের মানুষের সাথে কখনো কথাই বলেনি। অথচ আপনি জানলে অবাক হবেন যে এই প্রশ্নটি মেয়েদের কাছে একদম ফেভারিট একটা প্রশ্ন। কারণ মেয়েরা সব সময় নিজেদের ব্যাপারে অন্যদেরকে বলতে সবচেয়ে বেশি ভালোবাসে। তাই যখন কেউ তাদেরকে জিজ্ঞেস করে আজকে সারা দিন সে কি করলো।  তখন এরা নিজের ব্যাপারে কথা বলার একটা মহা সুযোগ পায়।  যেটা যেটা সব মেয়েরা খুব পছন্দ।  তোর মামা কি বুঝলেন? এখন থেকে যখনি কোন মেয়ের সাথে কথা বলবেন। তখন অবশ্যই তাকে মিষ্টি কণ্ঠে আগে প্রশ্নটি অবশ্যই জিজ্ঞেস করবেন আজকে সারাদিন কি কি করলে?

নাম্বার ২ ফ্যামিলি মেম্বারদের সম্পর্কে কথা বলা

৯৫% ছেলেরা যখন তাদের পছন্দের মেয়েটির সাথে কথা বলে থাকে তখন তারা শুধুমাত্র মেয়েটির সম্পর্কে খবর নেয়। যেমন- তুমি কেমন আছো? কি করতেছ? তোমার শরীর ভালো তো ইত্যাদি ইত্যাদি। কিন্তু আপনি হয়তো জানেন না কোন মেয়ের সাথে কথা বলার সময় আপনি তার নিজের খোঁজখবর নেওয়ার চেয়ে তার ফ্যামিলি মেম্বারদের খোঁজখবর বেশি নিলে তারা বরং সবচেয়ে বেশি খুশি হয়। যেমন আপনি যখন মেয়েটির সাথে কথা বলবেন তখন তাকে জিজ্ঞেস করতে পারেন তোমার আব্বু আম্মু কেমন আছে? আচ্ছা আঙ্কেল অসুস্থ হওয়ার কথা শুনেছিলাম। তার শরীর এখন কেমন আছে?  এছাড়া আপনি বলতে পারেন আচ্ছা তোমার ছোট বোনটার তো এক্সাম ছিল তাই না? তার এক্সাম কেমন হলো। ও মাই গড বিশ্বাস করুন আপনাকে ভুলে বুঝাতে পারতেছি না মেয়েরা তাদের ফ্যামিলি সম্পর্কে এ ধরনের টপে কথা বলতে কতটা ভালোবাসে আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না। তো বন্ধুরা এখান থেকে কি বুঝলেন। এখন থেকে কোন মেয়ের সাথে কথা বলার সময় মেয়েটি সম্পর্কে খোঁজখবর নেন বা না নেন অবশ্যই তার পরিবার সম্পর্কে জানতে চাইবেন।

নাম্বার ৩ তার পছন্দের বিষয় সম্পর্কে কথা বলা

আপনি যখন কোন মেয়ের সাথে কথা বলবেন। তখন আপনি যদি তার পছন্দের বিষয়গুলো নিয়ে কথা বলতে শুরু করেন। তাহলে দেখবেন মেয়েটি এতটা আগ্রহ নিয়ে আপনার সাথে কথা বলা শুরু করে দিয়েছে যে, আপনারদের কথা বলা শেষ হতে চাচ্ছে না। এখন অনেকেই বলবেন মেয়েদের পছন্দের বিষয় বলতে আমি কি বুঝাতে চাচ্ছি? আরে ভাই এটাই তো বুঝলেন না। মনে করুন- মনে করুন মেয়েটি facebook ইউজ করতে পছন্দ করে। অথবা সে হয়তোসেলফি তুলতে খুব বেশি পছন্দ করে। অথবা সে হয়তো রান্না করতে খুব পছন্দ করে। সুতরাং তার সাথে কথা বলার সময় আপনার কাজ হবে সেই বিষয়গুলো নিয়ে তার সাথে বেশি বেশি কথা বলা। যেমন- আপনি তাকে প্রশ্ন করতে পারেন আচ্ছা বেশ কয়েকদিন হল তুমি যায় দেখি ফেসবুকে নতুন কোন স্ট্যাটাস দাও না? কেন দাও না? তোমার স্ট্যাটাস গুলো তো ভালই লাগে। অথবা আপনি তাকে প্রশ্ন করতে পারেন না তোমার লাস্ট সেলফিটা কোথায় তোলা জায়গার অনেক সুন্দর। আর হ্যাঁ সেলফি টা কিন্তু সত্যি অসাধারণ ছিল।অথবা আপনি তাকে বলতে পারেন আজকে তোমাদের বাসায় কি রান্না হলো? কে রান্না করলো? তুমি নাকি তোমার আম্মু ইত্যাদি ইত্যাদি। কি এবার ক্লিয়ার বুঝছেন নাকি আরো বুঝাতে হবে।

নাম্বার ৫মেয়েদের ইমপ্রেস করার প্রশ্ন

উপরে আমরা আপনাদের মাঝে সব মেয়েদের হাসানোর প্রশ্ন শেয়ার করেছি শুধুমাত্র মেয়েদেরকে হাসাতে পারবেন এমনটা নয়, সেই সাথে আপনি খুব সহজে যে কোন মেয়েকে ইমপ্রেস করতে পারবেন। এবার আমরা মেয়েদের ইমপ্রেস করার জন্য এবং তাদের সাথে দীর্ঘ সময় কথা বলার কিছু শেয়ার করব। আপনি যদি এসব প্রশ্ন কোন মেয়েকে করে থাকেন অথবা এইসব টপিক সম্পর্কে মেয়েদের কাছে জানতে চান তবে মেয়েটি খুশি তো হবেই সেই সাথে সে অনেক আগ্রহ নিয়ে আপনার সাথে কথা বলবে। তাহলে উচ্চারণটা টপিক গুলো সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

নাম্বার ৫ মেয়েটির বর্তমান দিনের সেরা মুহূর্ত সম্পর্কে জানতে চাওয়া

আপনি ছেলে মেয়েটিকে এই প্রশ্নটি করতে পারেন। এক্ষেত্রে হয়তো মেয়েটির উত্তর হতে পারে আমি সকালে ঘুরতে গিয়েছিলাম আমার খুব ভালো লেগেছে অথবা আমি দুপুরে ঘুরতে গিয়েছিলাম আমার ভালো লেগেছে ইত্যাদি ইত্যাদি। মজার বিষয় হলো আপনার যেমন প্রশ্নটি করতে তেমন কোন ব্যক্তিতে হবে না তেমনি ভাবে মেয়েটির প্রশ্নটির উত্তর দিতেও তেমন কোন পেতে হবেন। আবার মেয়েটিকে যখন আপনি প্রশ্ন করবেন তখন মেয়েটির এই প্রশ্নটি অনেক ভালো লাগবে এবং সে অনেক আগ্রহ নিয়ে আপনার প্রশ্নের উত্তর দিবে। শুধু তাই নয় এতে করে মেয়েটি বুঝবে আপনি তার প্রতি অনেক আগ্রহ দেখাচ্ছেন এতে করে মেয়ে এবং আপনার সাথে সে মন খুলে কথা বলতে চাইবে।

নাম্বার ৫ ড্রিম ভ্যাকেশন সম্পর্কে জানতে চান

ডিম ভ্যাকেশন হচ্ছে এমন একটি বিষয় সম্পর্কে জানতে চাও যেখানে মেয়েটির সুযোগ পেলে যেতে চাইবে। আর আমরা সবাই জানি আমাদের সবার কম বেশি একটি ড্রিম ভ্যাকেশন আছে। তাই আপনি মেয়েটির সাথে কথা বলার সময় তার ডিম ভ্যাকেশন কি? সে সম্পর্কে জানতে চাইতে পারেন অথবা আপনি তাকে এভাবে প্রশ্ন করতে পারেন যে তুমি কোন জায়গায় গেলে সব থেকে বেশি খুশি হবে? এভাবে আপনি মেয়েটির কাছ থেকে তার পছন্দের জায়গা সম্পর্কে সরাসরি কোন কিছু জানতে না চাইলেও তার বিষয় অনেক তথ্য আপনি খুব সহজে জেনে নিতে পারবেন।

নাম্বার ৬ নিজের জীবনে কতটুকু সুখী তা জানতে চান

আপনি যখন মেয়েটির সাথে কথা বলেন তখন মেয়েটিকে এই প্রশ্ন করতে পারেন যে তুমি তোমার জীবনে কতটুকু সুখী অথবা তোমার জীবনে তুমি কি কি চাও। আপনার এই প্রশ্নের উত্তর হয়তো মেয়েটি বলবে সে তার জীবনে অনেক খুশি তার বাবা-মা বন্ধুবান্ধব অনেক ভালো ইত্যাদি ইত্যাদি। আবার অনেক মেয়ে বলতে পারে আমার জীবন অনেক বেদনার কেউ আমাকে ভালবাসে না আমাকে সবাই অপছন্দ করে ইত্যাদি। এখান থেকে আপনি মেয়েটি পজিটিভ নাকি নেগেটিভ মাইন্ড এর শেষ সম্পর্কে খুব সহজে জানতে পারবেন। সেই সাথে এ ধরনের প্রশ্ন করলে মেয়েটি অনেক খুশি হবে এবং আপনার সাথে অনেক আগ্রহ নিয়ে কথা বলবো বলবে।

নাম্বার ৭ ছোটবেলার কোন জিনিসগুলো মিস করে তা জানতে চান

আপনি যখন মেয়েটির সাথে কথা বলবেন তখন কথায় কথায় আপনি মেয়েটির ছোটবেলার স্মৃতি সম্পর্কে জানতে চাইতে পারেন যেমন মেয়েটি ছোটবেলার কোন জিনিসগুলো মিস করে এবং কোন জিনিসগুলো তার সবচেয়ে বেশি ভালো লাগতো? তখন তার অনেক স্মৃতি মনে পড়বে। আবার কিছু স্মৃতি সেটা বাড়ির লোকদের কাছ থেকে জেনে এসে আপনাকে যেন আমি এভাবে আপনি মেয়েটির কাছে অনেক তথ্য জানতে পারবেন। সে আপনার প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে অবশ্যই অনেক খুশি হবে এবং তার মুখে হাসি চলে আসবে।

 

উপরে আমরা আপনাদের মাঝে যে কয়টি টপিক শেয়ার করেছি আপনি চাইলে এই টপিকগুলো আপনার পছন্দের মানুষের ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন আশা করি আপনি ১০০% সাকসেস হবেন এবং কোন টপিকটা আপনার কাছে সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে জানিয়ে দিবেন। আর আর্টিকেলটি যদি ভালো লেগে থাকে তবে আপনার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করতে ভুলবেন না। ধন্যবাদ।

Please Share This Post in Your Social Media
About The Author
Riya Akther
আমার নাম রিয়া আক্তার। আমি একজন স্টুডেন্ট। মেয়ে পটানোর থেরাপি সম্পন্ন ব্যতিক্রমধর্মী একটি ওয়েবসাইট। আমি মূলত মেয়ে পটানোর থেরাপির ওয়েবসাইটের সকল আর্টিকেল লিখেছি। আমি আমার আর্টিকেলে আপনাদের মাঝে যেসব আইডিয়া শেয়ার করেছি এগুলো মূলত আমার বন্ধু বান্ধব ও বান্ধবীদের ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে নিয়েছি। আমার এই ওয়েবসাইটে কাজ করার উদ্দেশ্য হচ্ছে উদ্দেশ্য হচ্ছে যাতে করে সবাই তার ভালোবাসার মানুষের কাছে তার মনের কথা খুব সহজে জানাতে পারে এবং আমার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আমি যাতে আপনাদের ভালোবাসার মানুষটিকে পেতে আপনাদেরকে সকল ধরনের সাহায্য করতে পারি।